ব্যবহারিক দিকগুলো হিসেব করলে আপেল সিডার ভিনেগার বাংলাদেশে তেমন একটি পরিচিত নাম নয়। তবে যারা একটু খোঁজ খবর রাখেন তারা জানেন খাবার বানানো থেকে শুরু করে রূপচর্চা, রূপচর্চা থেকে ওজন কমানো, এমনকি ঘর পরিষ্কার করার কাজেও ব্যবহার করা যায় আপেল সিডার ভিনেগার। আপেল সিডার ভিনেগার মূলত আপেলকে গাজনের মাধ্যমে দুবার প্রসেসিং করে তৈরি করা হয়। এতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস এবং পটাশিয়াম রয়েছে। আসুন জেনে নিই আপেল সিডার ভিনেগারের অজানা কিছু উপকারিতার কথা।

আপেল সিডার ভিনেগারের অজানা ব্যবহার

ব্লাড সুগার কমায়
আপেল সিডার ভিনেগার ব্লাড সুগার লেভেলকে নিয়ন্ত্রণে রাখে। এতে করে শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে ডায়াবেটিস ও ক্যানসার আক্রান্ত রোগীদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।
ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে
আপেল সিডার ভিনেগার শরীরের ওজন কমাতে সাহায্য করে। এর মধ্যে থাকা এসিটিক এসিড খাওয়ার ইচ্ছাকে দমন করে শরীরের মেটাবলিজম বাড়ায়। প্রতিদিন আপেল সিডার ভিনেগার দুই চামচ করে খেলে ওজন কমে। এছাড়াও টানা ১২ সপ্তাহ এটি সেবন করলে তলপেটের চর্বি কমাতে সহায়তা করে।
খুশকি কমায়
মাথার খুশকি থেকে রেহাই পেতে আপেল সিডার ভিনেগারের তুলনা নেই। এক টেবিল চামচের চারভাগের এক ভাগের সাথে এক কাপের চার ভাগের একভাগ পানি মিশিয়ে মাথার খুলির ত্বকে ভালো করে ঘষে ১৫ মিনিট পর শ্যাম্পু করে নিন। সপ্তাহে দুইবার এরকম করলে ভালো ফলাফল পাবেন।
ব্রণ দূর করে
অ্যাপেল সিডার ভিনেগার এর অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল প্রভাব প্রাকৃতিক টোনার হিসেবে কাজ করে। যা মুখে ব্রণের বৃদ্ধি কমিয়ে আনে এবং ব্রণ দূরীকরণে সাহায্য করে। এর এসিড মুখের পিএইচ এর মাত্রা ঠিক রাখে এবং অন্যান্য দাগ দূর করতে সহায়তা করে।
ডায়রিয়া রোধ করে
ব্যাকটেরিয়াজনিত কারণে ডায়রিয়া হলে আপেল সিডার ভিনেগার এক চামচ খাইয়ে দিলে খুবই কাজ করে।
খাবার সংরক্ষণে সাহায্য করে
অন্যান্য ভিনেগারের মতোই আপেল সিডার ভিনেগারও খাবার সংরক্ষণে প্রিজারভেটিভ হিসেবে ব্যবহার করা যায়। এটাতে এসিটিক এসিড থাকার কারণে এটা খাবারের এনজাইম ও ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে।
মুখের দুর্গন্ধ দূর করে
অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান থাকার কারণে আপেল সিডার ভিনেগারের সাথে পানি মিশিয়ে কলকুচি করে ফেলে দিলে মুখের দুর্গন্ধ দূর হয়।
সালাদ ড্রেসিং হিসেবে
বিভিন্ন ধরনের সবুজ শাকসবজির সালাদ এবং ফ্রুট সালাদ তৈরি করার জন্য সালাদ ড্রেসিং হিসেবে আপেল সিডার ভিনেগার বহুল ব্যবহৃত।
ডিশ ডিটারজেন্ট হিসেবে
গৃহস্থালির বিভিন্ন পণ্য যেমন থালা-বাসন পরিষ্কার করার জন্য ডিশওয়াশারের সঙ্গে আপেল সিডার ভিনেগার মিশালে খুবই দরকারি ডিটারজেন্ট হিসেবে কাজ করবে।
যেখানে পাবেন আপেল সিডার ভিনেগার:
কোথায় পাওয়া যাবে এই বহুগুণের অধিকারী আপেল সিডার ভিনেগারকে? দেশের সবগুলো সুপার শপসহ বড় যেকোনো মুদির দোকানে পেতে পারেন এটি। তবে এটি ব্যবহারে সতর্কতার পরিচয় দেয়াই ভালো। দৈনিক এক থেকে দুই চামচের বেশি ব্যবহার না করাই শ্রেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here