পৃথিবীর এক বিরল প্রজাতির পাখি ব্লু গোল্ড ম্যাকাও । পৃথিবীর সবচেয়ে দামি পাখি বলা হয় এই পাখিকেই। বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতি হচ্ছে ম্যাকাও। এই পাখির দাম বিশ্ববাজারে ৬০ থেকে ৭০ লাখ টাকা। ব্লু অ্যান্ড ইয়েলো ম্যাকাও তোতা জাতীয় পাখি ।এই পাখি জনপ্রিয় এবং মানুষের পোষা পাখি হিসাবে জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

এই পাখি দক্ষিণ আমেরিকার আমাজন অরণ্যের স্বাদুপানির বনাঞ্চলে বাস করতে দেখা যায়। ১৯৮০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের মায়ামি-ড্যাড কাউন্টিতে ছোট্ট পরিসরে এদের আবাসস্থল গড়ে উঠেছে।

এ পাখি দৈর্ঘ্যে ক্ষেত্র বিশেষে ৭৬ থেকে ৮৬ সেমি (৩০ থেকে ৩৪ ইঞ্চি) এবং ওজনে ৯০০-১৫০০ গ্রাম হতে পারে। এরফলে পাখিটি তাদের পরিবারের অন্যতম বৃহৎ প্রজাতির পাখি হিসেবে বিবেচিত। নীল রঙের ডানা ও লেজ, ঘন নীল চিবুক, নীচের দিকে সোনালী রঙ এবং মাথার দিকে সবুজাভ রঙে সজ্জ্বিত এ পাখিটির নজরকাড়া সৌন্দর্য্য সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। চঞ্চুগুলো কালো রঙের হয়। আবার চোখের নীচে মুখাকৃতি সাদা রঙের। মুখের নীচে ছোট কালো পালক রয়েছে। ম্যাকাও শক্ত চঞ্চুর অধিকারী যা বাদামজাতীয় শষ্যের শক্ত খোলশ ভেঙ্গে ফেলতে সক্ষম ও খাদ্য হিসেবে গ্রহণ করে। এছাড়াও এটি গাছে চড়তে পারে ও বৃক্ষ শাখায় ঝুলে থাকতে পারে। বুনো অবস্থায় এ ধরনের ম্যাকাও বেশ আক্রমণাত্মক ভঙ্গী প্রদর্শন করে। ছোট বাচ্চা ম্যাকাও বেশ চিত্তাকর্ষক ।

সাধারণতঃ ব্লু অ্যান্ড ইয়েলো ম্যাকাও পাখি তার বিপরীত লিঙ্গীয় সঙ্গীকে নিয়ে সারাজীবন একত্রে থাকে। মৃত গাছে এদের বাসা থাকে। স্ত্রী পাখিটি সচরাচর দুই থেকে তিনটি ডিম পেড়ে থাকে। প্রায় আটাশ দিন স্ত্রী পাখিটি ডিমে তা দেয়। প্রায় ৯৭ দিন পর বাচ্চাগুলো বাসা ত্যাগ করে। পুরুষ বাচ্চাকে শুরু থেকেই রঙের মাধ্যমে নির্ধারণ করা যায়। উজ্জ্বল ও ঘন রঙের মাধ্যমেই পাখির লিঙ্গ নিরূপিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here