বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয় কনে-বরকে হলুদ লাগিয়ে। আগের দিনের মতো আলাদা গায়ে হলুদ না হয়ে একসাথে হচ্ছে বর ও কনেপক্ষের হলুদ। গায়ে হলুদের দিনে খুব একটা ঝামেলা না থাকলেও, নজরে রাখতে হয় ছোট ছোট অনেক বিষয়। রঙিন এবং জাকজমকপূর্ণ এই অনুষ্ঠান ভরপুর থাকে গান-বাজনা ও নাচ দিয়ে। তাই এই অনুষ্ঠানে বর ও কনেকেও দেখাতে হবে সব থেকে সুন্দর। চলুন তাহলে দেখে নেই কোন সাজে অপরূপ লাগবে বর-কনেকে।
কনের সাজ
নিত্য নতুন ফ্যাশনের ভিড়ে এক্সপেরিমেন্ট করতে ভুলে না কনেরা। এখন আর সেই দিন নেই যে গায়ে হলুদে কনেরা পরবে হলুদ শাড়ি আর বর পরবে সাদা পাঞ্জাবি। পরিবর্তনের এই হাওয়ায় এখন কনেরা পরছে লাল, সবুজ, খয়েরি থেকে শুরু করে সাদা শাড়িও। আসল ফুলের গহনার পরিবর্তে এসেছে কাগজের অথবা প্লাস্টিকের ফুলের গহনা। এছাড়া ফ্যাশনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে পরতে পারেন মেটালের অলংকারের উপর ফুলের গহনা। সাধারণত গায়ে হলুদে কনেদের পছন্দ টাঙ্গাইলের সুতি শাড়ি, হাফ সিল্ক, সিল্ক কাতান বা জামদানি শাড়ি। তবে হালকা কাজের শাড়ি গায়ে হলুদের জন্য বেশি মানানসই। বাঙালি সাজে শাড়ি পরলে অসাধারণ লাগবে তাদের। তবে সাম্প্রতিক ট্রেন্ড হিসেবে কনে পক্ষের সব মেয়েরা একই ডিজাইনের শাড়ি পরতে পছন্দ করেন। এসব শাড়ি আপনি চাইলে নিউমার্কেট-গাউছিয়া থেকে কিনে নিজেদের মতো করে ব্লক প্রিন্টের ডিজাইন করে নিতে পারেন। এক কাপড়ে সবাইকে লাগবে চমৎকার।
বরের সাজ
গায়ে হলুদে বরদের পাঞ্জাবি সাধারণত সুতি, সিল্ক অথবা হাফ সিল্কের হয়ে থাকে। হলুদ, সোনালি, লাল কিংবা সাদা পাঞ্জাবিতে দারুণ দেখায় বরদের। বিভিন্ন দোকানে পাওয়া যাবে বরদের পোশাক। আর সেখানে গিয়ে কিনে নিতে পারবেন পছন্দ মতো পোশাক। পাঞ্জাবির সঙ্গে মিল রেখে বরও পরতে পারেন হাতে বানানো পাগড়ী ও ওড়না। তবে বর-কনের পোশাক অবশ্যই তাদের গায়ের রঙের মিলিয়ে কিনতে হবে।
জুতা
বিয়ের অনুষ্ঠানে সাজসজ্জা ও পোশাকের পাশাপাশি প্রয়োজন হলো জুতা। বর-কনে উভয়ের জুতা হতে হবে অনুষ্ঠানের উপযোগী। যে জুতাগুলো পরতে কষ্ট হয় তা না পরাই ভালো। কনে শাড়ি বা লেহেঙ্গার সাথে উঁচু হিল পরতে পারে। আর বরের জন্য বিয়েতে পাঞ্জাবির সাথে নাগরা মানানসই হতে পারে। বউভাতে স্যুট প্যান্টের সঙ্গে পরতে পারেন জুতা। এক্ষেত্রে জুতার রং স্যুট-প্যান্টের বিপরীত রং হলে ভালো হয়। বর ও কনের উভয়ের জুতা আপনি কিনতে পারবেন নিউ মার্কেট, বসুন্ধরা সিটি, ফরচুন মার্কেট কিংবা যেকোনো শপিং মলে।
মেকআপ-কসমেটিক
আলমাস সুপার শপ, প্রিয় সুপার শপ, গুলশানের প্যারিস পারফিউম, পারফিউম ওয়ার্ল্ড, বসুন্ধরা সিটি, যমুনা ফিউচার পার্ক, নাভানা টাওয়ার, বনানী মৈত্রী শপিং কমপ্লেক্স, বেইলি রোডের স্টার ডাস্ট ও স্টার ওয়ার্ল্ড, পিঙ্ক সিটিতে পাওয়া যাবে ব্র্যান্ডেড এবং নন-ব্র্যান্ডেড পারফিউম, মেকআপ ও কসমেটিক। এছাড়া অনলাইনের বিভিন্ন ওয়েবসাইট এবং ফেসবুকের বিভিন্ন পেজগুলো থেকে কিনে নিতে পারেন এগুলো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here