বরফ জমানো প্রচণ্ড ঠাণ্ডার মধ্যে চীনের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিশু সাড়ে ৪ কিলোমিটার হেঁটে স্কুলে পৌঁছানোর ছবি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। শিশুটির বয়স মাত্র আট বছর। নিতান্তই দরিদ্র পরিবারের শিশু সে।

ঘণ্টাব্যাপী বরফ শীতল পথ পেরিয়ে যেতে তার মাথায় চুলগুলোতে বরফ জমাট বেঁধে যায়। এই ছবি দেশ গ্রামীণ এলাকায় দারিদ্র্যের প্রভাব নিয়ে বিতর্ক জোরদার হয়েছে।

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইউনান প্রদেশের এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ওয়াংফুম্যান ‘বিস্ময়কর বরফ বালক’ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। স্কুলে পৌঁছানোর পরে গোলাপী গাল ও বরফ আচ্ছাদিত চুলের বালকটি ছবি তোলেন এবং সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করেন। চীনের সংবাদ মাধ্যমে এই রিপোর্ট প্রকাশ পায়। চীনের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সংবাদ সংস্থার খবরে বলা হয়, বাড়ি থেকে সাড়ে ৪ কিলোমিটার হেঁটে এক ঘন্টার বেশি সময়ে ওয়াং স্কুলে পৌঁছায়। এদিন তাপমাত্রা ছিল মাইনাস ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ২০১২ সালে ক্ষমতা গ্রহণের পরে দারিদ্র্য দূরীকরণের অঙ্গীকার ঘোষণা করেছিলেন এবং ২০২০ সাল নাগাদ গ্রামীণ দারিদ্র্য নিরসন করে মধ্য মাত্রার সমৃদ্ধ সমাজক নির্মাণের ঘোষণা করেন।

সরকারি হিসেবে দেখা যায়, ২০১৬ সালে দেশটির গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর প্রায় ৪৩ দশমিক ৩ মিলিয়ন লোক দারিদ্র্য সীমার নিচে বসবাস করছে। দেশটির দারিদ্র্য সীমায় বসবাসকারিদের বার্ষিক মাথাপিছু আয় ২৩০০ ইউয়ান (৩৪৬ ডলার)। এই আয়ের নিচে বসবাসকারীদের দরিদ্র ধরা হয়।

ওয়াং এমনই এক দরিদ্র পরিবারের সন্তান। ওয়াং’র বাবা-মা শহরে কাজ করেন। তারা তাদের শিশুদের গ্রামে দাদা-দাদীর কাছে রেখে আসেন। সম্প্রতি চীনের দারিদ্র্যের এই চিত্র নিয়ে তুমুল আলোচনা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here