বাংলাদেশী আকায়েদ উল্লাহ নিউ ইয়র্কে সন্ত্রাসী হামলা চালানোর পর যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসন আইন সংস্কারের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, বিদ্যমান অভিবাসন নীতিতে অনেক গলদ আছে। তা কাটিয়ে উঠতে হবে। এ সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা কর্মসূচির কড়া সমালোচনা করেন। এই ভিসা কর্মসূচির মাধ্যমে ২০১১ সালে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার সুযোগ পায় আকায়েদ উল্লাহ। আগে থেকেই যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছিলেন তার পরিবারের সদস্যরা।
ফলে ফ্যামিলি ভিসা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে যায় আকায়েদ উল্লাহ। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, এমন ফ্যামিলি ভিসা যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। উল্লেখ্য, এমনিতেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে থেকেই অভিবাসন বিরোধী অবস্থান নিয়েছেন। তখনই তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে কয়েক লাখ অবৈধ অভিবাসীকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে বের করে দেবেন তিনি। এ ছাড়া মুসলিম বিরোধী একটি অবস্থানও ছিল তার। তিনি নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব নিয়েছেন প্রায় এক বছর। এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে বেশ কয়েকটি সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। এসব হামলা তাকে অভিবাসন বিরোধী নীতি কঠোরে যে সহযোগিতা করবে তা একবাক্যে স্বীকার করেন রাজনৈতিক বোদ্ধারা। এমনই এক সময়ে এসব সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে বাংলাদেশের চট্টগ্রামের যুবক আকায়েদ। এ জন্য যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী বাংলাদেশী সম্প্রদায়ের ওপর নেতিবাচক প্রভাব পরতে পারে।