বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো নিউ আমেরিকান ইয়্যূথ ফোরাম, সপ্তম বার্ষিক ডিনার পার্টি। গত শনিবার (৬ জানুয়ারী) সন্ধ্যায় জ্যামাইকার তাজমহল পার্টি হলে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানটি আয়োজনে সহযোগিতায় ছিলো নিউ আমেরিকান ডেমোক্রেটিক ক্লাব ও নিউ আমেরিকান ওমেন্স ফোরাম। অনুষ্ঠানে মূলধারার রাজনীতিকদের মুখে বাংলাদেশী-আমেরিকান কমিউনিটির প্রশংসার পাশাপাশি সম্ভানার কথাও উঠে আসে। বক্তারা বলেন, আজ থেকে ৩০/৩৫ বছর আগে বাংলাদেশী-আমেরিকান ডেমোক্র্যাট মোর্শেদ আলম যে বীজ বপন করে পথ দেখিয়েছেন, সেই পথেই বাংলাদেশী কমিউনিটি অনেক দূর এগিয়ে গেছে। সময় আসছে সিটি প্রশাসনে বাংলাদেশী মুখ নির্বাচিত হওয়ার। এই লক্ষ্যে এখন থেকেই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। সকল বাংলাদেশী-আমেরিকানকে ভোটার হতে হবে।

এই ডিনার অনুষ্ঠানমালার মধ্যে ছিলো সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বিনিময়, প্ল্যাক প্রদান, সঙ্গীত, নৃত্য ও ডিনার। ইউএস কংগ্রেসওম্যান ইভেন্ট ক্লার্ক, নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটে নিযুক্ত কনসাল জেনারেল মো: শামীম আহসান, নিউইয়র্ক সিটির পাবলিক এডভোকেট লেটিসা জেমস, নিউইয়র্ক ষ্টেট অ্যাসেম্বলীওম্যান আলিসিয়া হ্যান্ডম্যান, সিটির সাবেক কম্পট্রোলার জন ল্যু, গভর্নর এন্ড্রু কমোর প্রতিনিধি হরেস প্রকাশ, কংগ্রেসওম্যান গ্রেস মেং-এর প্রতিনিধি স্যানড্রা ওয়ং, মূলধারার রাজনীতিক মোর্শেদ আলম, বিশিষ্ট রাজনীতিক ডা. মাসুদুল হাসান, অ্যাসাল প্রেসিডেন্ট মাফ মিসবাহ উদ্দিন ও ডিষ্ট্রিক্ট লীডার এন্থনী অ্যান্ড্রোস ও রোসলেন স্পীগনার সহ মূলধারার জনপ্রতিনিধিদের প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠান আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন।

বাংলাদেশী কমিউনিটিতে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ইউএস কংগ্রেসওম্যান ইউভেটি ডি ক্লার্ক সহ অনুষ্ঠানে মূলধারার রাজীতিক ও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিকে আয়োজক সংগঠনের পক্ষ থেকে প্ল্যাক প্রদান করা হয়। প্ল্যাকপ্রাপ্তরা হলেন: এটর্নী সোমা সাঈদ, মুক্তিযোদ্ধা সরাফ সরকার ও ড. আব্দুল বাতেন, ড. এন্থনী এন্ড্রোজ, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট এবিএম ওসমান গণি, এডভোকেট মুজিবুর রহমান, দীলিপ দেবনাথ, মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, সৈয়দ বাহলুল উজ্জল, মিজানুর চৌধুরী, আব্দুল কাদের মিয়া, ওরনী এলিজাবেথ বার্না, মোহামেদ হ্যাক, বরিস ডেভিডোফ ও সিদ্দিক উই।

অনুষ্ঠানে কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন নিউইয়র্ক সিটির গত নির্বাচনে কাউন্সিম্যান পদপ্রার্থী মোহাম্মদ টি রহমান ও হেলাল শেখ, এবিএম ওসমান গণি, মিলন রহমান, এটর্নী সোমা সাঈদ, দীলিপ নাথ, মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনায় ছিলেন রোকেয়া আক্তার, আনাফ আলম ও রুবাইয়া রহমান। অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন শেখ আল আমীন, আমিনুল ইসলাম, সালেহা আলম, হুসনে আরা বেগম, আব্দুস সেলিম, শিরীন কামাল, রোমানা জেসমীন, সালমা ফেরদৌস ও সেলিনা হোসেন।

অনুষ্ঠানে আগামী দুই বছরের জন্যে নিউ আমেরিকান ডেমোক্রেটিক ক্লাবের নতুন পরিচালনা পরিষদ ঘোষণা করা হয়। নতুন কর্মকর্তারা হলেন: প্রেসিডেন্ট- মোর্শেদ আলম, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট- মাফ মিসবাহ উদ্দিন, পরিচালনা পরিষদের চেয়ার- রুবাইয়া রহমান, কো চেয়ার- মুক্তিযোদ্ধা মনির হোসেন এবং মনিকা রায়, রাজনীতি বিষয়ক পরিচালক- মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, শ্রম বিষয়ক পরিচালক- কাজী মনির, জনসংযোগ পরিচালক- করিম চৌধুরী, নারী বিষয়ক পরিচালক- রোকেয়া আকতার। এছাড়াও আরো কয়েজন ভাইস প্রেসিডেন্ট ও পরিচালক রয়েছেন। উল্লেখ্য, ক্লাবের প্রেসিডেন্ট মোর্শেদ আলমের নেতৃত্বে ১৯৯৬ সালে নিউ আমেরিকান ডেমোক্রেটিক ক্লাব প্রতিষ্ঠিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here