নারীজনিত সমস্যা ক্রিকেটাদের নতুন কিছু নয়। গত দুবছরে বেশ কবার ঘটেছে এই ধরনের ঘটনা। যার কারণে ক্রিকেটারদের পেতে হয়েছে শাস্তিও।

নারীজনিত সমস্যা বাদেও রয়েছে শিশু নির্যাতনের অভিযোগও। তবে এই তালিকায় নতুন করে যোগ হয়েছে জাতীয় দলের পেসার মোহাম্মদ শহীদ। বেশ কদিন আগে পেসার শহীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিলেন তার সহধর্মিণী ফারজানা আক্তার।

তার স্ত্রীর অভিযোগ তার ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন শহীদ। গতকাল বিসিবির কার্যালয়ে সন্তানদের নিয়ে এসেছিলেন শহীদের স্ত্রী ফারজানা। সাংবাদিকদের সঙ্গে খোলাখুলি কিছু না বললেও জানা যায়, গত ২৩ জুন ফারজানাকে ঘর ছাড়ার নির্দেশ দেন এই ক্রিকেটার।

ঘর ছাড়ার পরেই মুন্সিগঞ্জে সন্তানদের নিয়ে বাবার বাড়িতে ওঠেন ফারজানা। তিনি আরো বলেন, শহীদ ও তার ব্যাপারে কথা বলতে মুন্সিগঞ্জের সংসদ সদস্যের কাছে যান ফারজানা।

সংসদ সদস্যর উপদেশেই বিসিবির কার্যালয়ে আসেন শহীদের স্ত্রী। তবে বিসিবি তাকে আস্বস্ত করেছিলেন সমস্যার সমাধান করে দেয়ার ব্যাপারে।

বিসিবির অফিসে সাংবাদিকদের সামনে শহীদের সঙ্গে কথা বলেন তার স্ত্রী ফারজানা আক্তার। যেখানে সবার সামনে ফারজানাকে ধমক দিয়ে বলেন, “বিসিবি আমার কিছুই করতে পারবে না। যদি তুমি তাদের কাছে যাও, তাহলে আমি কখনোই আমার ঘরে স্থান দিবো না।”