বিশ্ব ইজতেমা নয়, দিল্লি ফেরত যেতে হচ্ছে ভারতের দিল্লি মারকাজের মুরব্বি মাওলানা সাদ কান্ধলভিকে।

বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে দু’পক্ষকে নিয়ে বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। বিকেল ৩টা থেকে শুরু হওয়া এ বৈঠক চলে সোয়া ৫টা পর্যন্ত।

বৈঠকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল ছাড়াও মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, তাবলিগের শুরার সদস্য ও আলেমরা উপস্থিত ছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মাওলানা সাদ ইজতেমা ময়দানে যাবেন না। সুবিধামতো সময়ে নিজ দেশে ফিরে যাবেন। যতদিন বাংলাদেশে থাকবেন ততদিন কাকরাইল মসজিদেই থাকবেন।

উল্লেখ্য, মাওলানা সাদ ‘তাবলিগ করা ছাড়া কেউ বেহেশতে যেতে পারবে না’ বলে বক্তব্য দেয়ায় তার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দ মাদ্রাসা।সেখান থেকে মাওলানা সাদকে এ বক্তব্য প্রত্যাহারের আহ্বান জানানো হয়। কিন্তু তিনি উল্টো যুক্তি দেন। এ নিয়ে মাওলানা সাদের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

একপর্যায়ে দেওবন্দ মাদ্রাসার অনুসারী বাংলাদেশের আলেমরা তার বিরুদ্ধে অবস্থান নেন। তারা তাকে টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমায় আসতে না দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন।তাবলিগ জামাতের বাংলাদেশ শাখার ১১ শূরা সদস্যের মধ্যে ছয়জনই আলেমদের এ সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here