মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে অব্যাহত গণহত্যা ও নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের দুর্দশা দেখতে মালয়েশিয়ার উপপ্রধানমন্ত্রী আহমদ জাহিদ হামিদি এক ঝটিকা সফরে ঢাকা আসছেন।
আগামী রোববার বিশেষ বিমানে তিনি ঢাকায় পৌঁছাবেন। এরপরই তিনি কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যাবেন। সেখান থেকে ঢাকায় ফিরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলীর সঙ্গে সন্ধ্যায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বৈঠক করবেন। বৈঠকের আগেই তার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতের কথা রয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, সফরকালে মালয়েশিয়ার উপপ্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যু ছাড়াও দ্বিপক্ষীয় বিভিন্ন ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে কথা বলবেন। রাতেই তার ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে। মালয়েশিয়া বরাবরই রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরব রয়েছে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক সমপ্রতি জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ একা নয়। নতুন করে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের প্রয়োজনীয় সহায়তা দিতে বাংলাদেশ সরকারের পাশে রয়েছে তার দেশ। ঢাকার আশাবাদ এই সফরে নতুন কোনো সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেবে দেশটি। আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) বলছে, সহিংসতার জেরে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা প্রায় সোয়া পাঁচ লাখ। তবে বেসরকারি হিসেবে এই সংখ্যা সাড়ে ছয় লাখ ছাড়িয়েছে। রোহিঙ্গা স্রোত কোনো মতেই থামছে না। যাদের বেশির ভাগই নারী ও শিশু। সহিংসতায় প্রাণ গেছে তিন হাজারের বেশি মানুষের। বেসরকারিভাবে এই সংখ্যা দশ হাজার পার করেছে মধ্য সেপ্টেম্বরেই। হাতাহতের প্রকৃত এবং বিশ্বাসযোগ্য তথ্যানুসন্ধানে রাখাইনে আন্তর্জাতিক প্রতিনিধি দলের অবাধ প্রবেশাধিকারের জন্য মিয়ানমারের ওপর চাপ বাড়ছে। একই সঙ্গে সহিংসতা এখনও বন্ধ না হওয়ায় বিশ্বাঙ্গনে ঘৃণা ও সমালোচনার মুখে রয়েছে সদ্য গণতন্ত্রের পথে যাত্রা করা মিয়ানমার।