রাখাইনে জাতিসংঘ দলের পূর্বনির্ধারিত সফর বাতিল করে দিয়েছে মিয়ানমার। ২৫শে আগস্ট নতুন করে সহিংসতা শুরু হবার পর জাতিসংঘের জরুরি সহায়তা কর্মীদের রাখাইন ছাড়তে বাধ্য করা হয়। এরপর এটা জাতিসংঘের প্রথম সফর হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ ফের বাধ সাধলো। ইয়াঙ্গুন থেকে জাতিসংঘের এক মুখপাত্র বিবিসিকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরো জানিয়েছেন, সফর বাতিলের পেছনে কোন কারণ দেখানো হয় নি।
বিবিসির খবরে বলা হয়, গত এক মাসে মিয়ানমারের রাখাইন থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছে ৪ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা মুসলিম। রাখাইনের প্রকৃত অবস্থা স্বচক্ষে দেখার জন্য সেখানে যাওয়ার জন্য চাপ দিয়ে আসছে জাতিসংঘ।
বাংলাদেশে যারা পালিয়ে প্রাণ বাঁচিয়েছেন তারা বলছেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনী নির্যাতন, হত্যাযজ্ঞ, ধর্ষণ আর অগ্নিসংযোগের নির্মমতা চালিয়ে তাদের ঘর ছাড়তে বাধ্য করেছে। সংবাদকর্মীদের ছবিতেও প্রমাণ মিলেছে যে গ্রামের পর গ্রাম পুড়ে ছারখার করে দেয়া হয়েছে।