মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন নতুন পরমাণু অস্ত্র তৈরি করতে চাইছে যাতে রাশিয়াকে সহজে মোকাবেলা করা যায়। তবে এ প্রস্তাবে এখনো প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সই করেননি। মার্কিন কর্মকর্তাদের কেউ কেউ দাবি করছেন, এর মাধ্যমে পরমাণু যুদ্ধের ঝুঁকি কমবে।

‘নিউক্লিয়ার পোসচার রিভিউ’ নামের এ প্রস্তাবটি এখনো নীতিনির্ধারণী ডকুমেন্ট হিসেবে রয়েছে। মনে করা হচ্ছে- এ নীতি গ্রহণের মাধ্যমে আমেরিকা পরমাণু ক্ষেত্রে আরো আগ্রাসী অবস্থান নিতে যাচ্ছে। বার্তা সংস্থা এপি গতকাল (শনিবার) এ খবর দিয়েছে।

এপির খবর অনুসারে, পরমাণু অস্ত্র সংক্রান্ত মার্কিন এ নীতি ফেব্রুয়ারি মাসে প্রকাশ করা হবে। মার্কিন প্রশাসন দাবি করছে, ইউরোপীয় মিত্রদেরকে রাশিয়ার হুমকি থেকে রক্ষার জন্য মূলত ট্রাম্প প্রশাসন এমন আগ্রাসী অবস্থান নিতে চাইছে।

এপি’র খবরে আরো বলা হয়েছে, ২০১০ সালের পর এই প্রথম পরমাণু অস্ত্র বিষয়ে এমন কোনো পর্যালোচনা হতে যাচ্ছে। আগামী দুই দশকের মধ্যে মার্কিন পরমাণু অস্ত্রের ভাণ্ডার আরো বেশি আধুনিক করে তোলারও পরিকল্পনা নেয়া হবে। সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার নীতি ছিল- মার্কিন সামরিক বাহিনীতে দিন দিন পরমাণু অস্ত্রের ভূমিকা কমিয়ে আনা; কিন্তু ট্রাম্প সে জায়গা থেকে সরে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। পাশাপাশি রাশিয়া ও চীনকে পরমাণু শক্তির ক্ষেত্রে সমস্যা হিসেবে বিবেচনা করে দেশ দুটির বিষয়ে কঠোর অবস্থান নিতে চান ট্রাম্প।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here