সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটকে(আইএস) রুখতে যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে একমত হয়েছেন রাশিয়া প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও আমেরিকা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
শনিবার এক বিবৃতিতে রুশ প্রেসিডেন্টের কার্যালয় ক্রেমলিন এ কথা জানিয়েছে।
বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সিরিয়া সংকট সামরিক শক্তি দিয়ে সমাধান করা যাবে না- এ ব্যাপারে একমত হয়েছেন পুতিন-ট্রাম্প। তাদের মতে, রাজনৈতিক উপায়ে এ সংকটের একটা পূর্ণাঙ্গ সমাধান খোঁজা উচিত। বিশেষ করে জেনেভা প্রোটোকলের ভিত্তিতে সিরিয়া-সংক্রান্ত জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ২২৫৪ অনুসরণ করতে হবে।
এতে বলা হয়েছে, সিরিয়ার সার্বভৌমত্ব, স্বাধীনতা ও আঞ্চলিক অখণ্ডতা বজায় রাখতে নিজেদের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেছেন পুতিন-ট্রাম্প। রাশিয়া-আমেরিকার সামরিক বাহিনীর নিরাপত্তার স্বার্থে দুই দেশের সামরিক চ্যানেলে যোগাযোগ বজায় রাখতে ঐকমত্যে পৌঁছেছেন তারা।
আইএসের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান পরিচালনায় যেসব ঝুঁকি থাকতে পারে, তা নিয়ে পুতিন-ট্রাম্প আলোচনা করেছেন বলেও উল্লেখ করা হয়েছে বিবৃতিতে।
এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থার(অ্যাপেক) সম্মেলনে অংশ নিতে ভিয়েতনামে আসেন পুতিন-ট্রাম্প। শুক্রবার সম্মেলনের প্রথম দিনে তাদের সাক্ষাৎ হয়। শনিবার সকালে সম্মেলন চলার সময় পার্শ্ববৈঠকে মিলিত হন দুই নেতা।
ছয় বছরের গৃহযুদ্ধে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ ও তার সরকারকে সমর্থন ও যুদ্ধে সহযোগিতা করে আসছে রাশিয়া। অন্যদিকে আসাদবিরোধী সিরীয় আরব ও কুর্দিদের সহযোগিতা করে আসছে আমেরিকা।