চারদিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছিল আট গাধাকে। কারাদণ্ড ভোগ করে সোমবার ছাড়া পেয়েছে তারা। অবিশ্বাস্য হলেও গাধার কারাদণ্ডের ঘটনা ঘটেছে ভারতে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।
দেশটির উত্তরপ্রদেশের জলৌন জেলার উরাই কারাগারের সামনে লাগানো দামি ও বাহারি গাছ খাওয়ার দায়ে তাদের এই দণ্ড ভোগ করতে হয়েছে।
ওই আট গাধার মালিক হলেন স্থানীয় কমলেশ নামের এক ব্যক্তি। নিজের আট গাধার কারাদণ্ডের খবর পেয়ে ছুটে এসেছিলেন তিনি। তাদের ছাড়িয়ে নিতে চান কিন্তু পারেননি।
পরবর্তীতে কমলেশ যান ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতার পার্টির (বিজেপি) এক স্থানীয় নেতার কাছে। চারদিন কারাবাসের পর গাধাগুলোর জন্য জামানতের বিনিময়ে জামিনের ব্যবস্থা করা হয়। শেষ পর্যন্ত গতকাল সোমবার ওই বিজেপি নেতার মধ্যস্থতায় গাধাগুলো ছাড়িয়ে আনেন তিনি।
জামিন মঞ্জুর হলে কারাগারের ফটক গলে বেরিয়ে আসতে থাকে গাধাগুলো। ফটকের বাইরে গাধাগুলোর জন্য অপেক্ষা করছিলেন তাদের মালিক কমলেশ।
তিনি বলেন, আমি এখানে আমার গাধাগুলোকে মুক্ত করে নিয়ে যেতে এসেছি। তারা চার দিন কারাবন্দি অবস্থায় ছিল।
উরাই কারাগারের কনস্টেবল আর কে মিশ্র বলেন, কারাগারের সামনে দামি ও বাহারি গাছ লাগানো হয়েছিল। ওই গাধাগুলির মালিককে সতর্ক করা সত্ত্বেও তিনি তাদের সেখানেই ছেড়ে দেন। ফলে গাছ খেয়ে ফেলে তারা। তাই গাধাদের আটক করে পুলিশ। মালিকের অনুরোধেও তাদের ছাড়া হয়নি।
যদিও উত্তর প্রদেশের পুলিশ পক্ষ থেকে জানানো হয়, গাধাগুলোকে আটকের কোনো কারণ দেখছেন না তারা। কারাগার কর্তৃপক্ষের অসাবধানতার ফলেই এ ক্ষতি হয়েছে।